যশোরে বাসের ভেতর নারীকে (২৫) ধর্ষণের ঘটনায় করা মামলায় সাতজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। প্রধান আসামী মনিরুল ইসলাম। একই সঙ্গে মামলার সাত আসামিকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

শনিবার (১০ অক্টোবর) দুপুরে যশোরের জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মামুনুর রশিদের আদালতে তাদের সোপর্দ করা হয়। পরে তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন বিচারক।

মামলার প্রধান আসামি মনিরুল ইসলাম (২৮) ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার কাশিমপুর গ্রামের ওহিদুলের ছেলে ও এমকে পরিবহন বাসের হেলপার। বর্তমানে মনিরুল যশোর সদর উপজেলার রামনগর ধোপাপাড়ায় কাঠমিস্ত্রি শহিদুলের বাড়ির ভাড়াটিয়া।

অভিযুক্ত মনিরুল এক কন্যাসন্তানের জনক। বাকি ছয় আসামি হলেন- শহরের সিটি কলেজপাড়ার রনজিৎ বিশ্বাসের ছেলে কৃষ্ণ, একই এলাকার সমর সিংহের ছেলে সুবাস সিংহ, শহরের বারান্দিপাড়ার জাবেদুল ইসলাম জাবেদের ছেলে রকিবুল ইসলাম রকিব, শহরের বেজপাড়ার গোলাম মাওলার ছেলে মইনুল ইসলাম মইন ও শহরের পূর্ববারান্দি মোল্লাপাড়ার শফিকুল ইসলাম বাবুর ছেলে শাহিন আহমেদ জনি।